নাটোরের নলডাঙ্গায় মন্দিরে আগুন লাগিয়ে প্রতিমা ভাংচুর।

প্রতিনিধি, নলডাঙ্গা॥
নাটোরের নলডাঙ্গা উপজেলার মোমিনপুর গ্রামের ঘোষপাড়া দুর্গা মন্দিরে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। এসময় মন্দিরের স্বরস্বতি প্রতিমার দুই হাত ও গলা ভেঙ্গে দেয়া হয়েছে। সোমবার (১৮ জুন) দিনগত রাত দুইটার সময় এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মু.রেজা হাসান, সহকারী পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মোঃ আবুল হাসনাত, ওসি নুর হোসেন খন্দকার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।
নলডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নুর হোসেন খন্দকার জানান, মোমিনপুর গ্রামের ঘোষপাড়া দুর্গা মন্দিরটি একটি পারিবারিক মন্দির। সোমবার রাত আনুমানিক দুইটার সময় কে বা কারা মন্দিরের ভিতরে রাখা স্বরস্বতি প্রতিমার দুই হাত ও গলা ভেঙ্গে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। এসময় মন্দিরের মধ্যে রাখা বাঁশে আগুন ধরিয়ে দেয় তারা। পরে টের পেয়ে স্থানীয়রা আগুন নিভিয়ে ফেলেন। তবে তাৎক্ষনিক ভাবে ওই আগুনে মন্দিরের কিছু অংশ পুড়ে যায়। কারা কি উদ্দেশ্য এ ঘটনা ঘটিয়েছে তা জানা যায়নি। তবে ধারনা করা হচ্ছে এলাকায় আতঙ্ক সৃষ্টিসহ ধর্মীয় অনুভুতিতে আঘাত হানার জন্য কেউ এ ঘটনা ঘটিয়ে থাকতে পারে। বিষয়টি উদঘাটনের চেষ্টা চলছে। এব্যাপারে মন্দিরের সভাপতি অজিত ঘোষ বাদি হয়ে থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।
মোমিনপুর ঘোষপাড়া দুর্গা মন্দির কমিটির সভাপতি অজিত ঘোষ জানান, এটা একটি পারিবারিক মন্দির। গত রাতে কে বা কারা মন্দিরের ভিতর বাঁশে আগুন ধরিয়ে দেয়। ওই আগুনে টিনের চালায় আগুন ধরলেও টিন না পড়ে কাঠের বাটাম ও বাঁশ পুড়ে যায়।
এসময় টের পেয়ে তারা তাৎক্ষনিক ভাবে আগুন নিভিয়ে ফেলেন। আর মন্দিরে রাখা স্বরস্বতি প্রতিমার দুই হাত ও গলা ভাঙ্গ দেখতে পান। বিষয়টি সকালে পুলিশকে জানালে তারা ঘটনাস্থলে আসেন। তিনি আরো জানান, মন্দির নিয়ে তাদের মধ্যে কখনও কোন বিরোধ ছিল না। এখনও তাদের মধ্য কোন বিরোধ নেই। ভিন্ন কোন উদ্দেশ্য হাসিল করতে কেউ এঘটনা ঘটিয়েছে। তবে এই ঘটনার বিচার দাবী করেন তিনি।
নলডাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মু.রেজা হাসান জানান, বিষয়টি স্পর্শকাতর। তাই দ্রুত তদন্ত পুর্বক ঘটনার উদঘাটন ও জড়িতদের গ্রেফতারে পুলিশকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published.