নাটোরের সিংড়ায় ‘সোঁতি সন্ত্রাস’র বিরুদ্ধে পলকের কঠোর হুঁশিয়ারী!

নাটোর: তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, সিংড়া বর্তমানে শান্তির জনপদে পরিণত হলেও ‘সোঁতি (এক প্রকার নিষিদ্ধ জাল) সন্ত্রাস’ এখনও বিরাজমান। মৎস্যভান্ডার চলনবিল ও বিলের মাছের উপর নির্ভরশীলদের জীবিকার বৃহত্তর স্বার্থে যে কোন মূল্যে নিষিদ্ধ সোঁতিজাল বন্ধ করা হবে।

মঙ্গলবার বিকেলে নাটোরের সিংড়া উপজেলার চামারী ইউনিয়নের প্রত্যন্ত বিলদহর ঈদগাহ মাঠে সিংড়া থানা কমিউনিটি পুলিশিংয়ের আয়োজনে সন্ত্রাস, মাদক ও জঙ্গীবাদ বিরোধী সমাবেশে অংশ নিয়ে প্রতিমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘দীর্ঘ ৩৭ বছর ধরে সিংড়ায় কিছু প্রভাবশালী ব্যক্তি ও তাদের পরিবারের লোকজন বাঁধ দিয়ে মাছ শিকার করছে। ২০০৯ সালে বর্তমান সরকার রাষ্ট্রক্ষমতায় আসার পর চলনবিলের মৎস্য সম্পদ সুরক্ষায় বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করে। পুলিশ ও স্থানীয়দের যৌথ সহযোগিতায় এখানে মাছ শিকার কমে এলেও প্রভাবশালীরা সোঁতিজাল ব্যবহার করে মাছ ধরা অব্যাহত রেখেছে।’

পলক আরো বলেন, ‘এই সোঁতি জালের বিরুদ্ধে শুরু থেকে কঠোর অবস্থান নেয়ায় প্রভাবশালীরা দিন গুনছেন কবে পলকের ক্ষমতা চলে যাবে। তারা বিভিন্ন দায়িত্বশীল ব্যক্তিদের মাধ্যমে বহুবার আমাকে সোঁতিজালের বিরুদ্ধে অবস্থান থেকে সরে যেতেও অনুরোধ করেছেন। আমি স্পষ্ট বলেছি, দেহে একবিন্দু রক্ত থাকতেও সোঁতিজালের বিরুদ্ধে অবস্থান থেকে সরে আসবো না।’

সমাবেশে বিশেষ অতিথির বক্তবে জেলা পুলিশ সুপার বিপ্লব বিজয় তালুকদার বলেন, কমিউনিটি পুলিশিংয়ের মাধ্যমে এলাকাভিত্তিক সমস্যার সমাধান নিজেরাই করবে মানুষরা। সিংড়াসহ সমগ্র নাটোরে অপরাধ দমনে সাধারণ মানুষকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। পুলিশ সাধারণ মানুষের পাশে থাকবে। পুলিশের কোন সদস্য প্রয়োজনে সাড়া না দিলে, তার বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সমাবেশে অনান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সিংড়া সার্কেলের এসপি মীর আসাদুজ্জামাম, সিংড়া থানার অফিসার ইনচার্জ মনিরুল ইসলাম, ইউপি চেয়ারম্যান রাশিদুল ইসলাম প্রমুখ।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published.