নাটোরের বাগাতিপাড়ায় হত্যার ভয় দেখিয়ে ছাত্রী ধর্ষণের অভিযোগ!

বাগাতিপাড়া: নাটোরের বাগাতিপাড়ায় হত্যার ভয় দেখিয়ে সপ্তম শ্রেণীর এক স্কুল ছাত্রী (১৩) কে ধর্ষনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। মঙ্গলবার উপজেলার চক গোয়াশ গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। বুধবার ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য পুলিশ হেফাজতে ছাত্রীকে নাটোর আধুনিক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় ছাত্রীর বাবা কাজল (২৭) নামের এক যুবককে আসামী করে থানায় মামলা করেছেন। অভিযুক্ত কাজল গালিমপুর গ্রামের সালাম আলীর ছেলে।
ছাত্রীর বাবার অভিযোগ, তিনি পেশায় একজন ভ্যান চালক। মঙ্গলবার সকাল ৬ টার দিকে বাড়ি থেকে ভ্যান নিয়ে ভাড়ার উদ্দেশ্যে বেরিয়ে পড়েন। অপরদিকে সকাল ৯টার দিকে নিজের মেয়েকে বাড়িতে রেখে তার স্ত্রী এনজিও’র ঋণের কিস্তি দিতে একই গ্রামের জিন্নাতের বাড়িতে যান। এসময় কেউ না থাকার সুযোগে কাজল তাদের বাড়িতে এসে তার মেয়েকে হত্যার ভয় দেখিয়ে গলা চেপে ধরে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। পরে ওই ছাত্রীর মা সকাল সাড়ে ১০টায় বাড়ি ফিরে মেয়ের মুখে ঘটনা জানতে পারেন। এ ঘটনায় মেয়ের বাবা মঙ্গলবার রাতে বাগাতিপাড়া মডেল থানায় একটি মামলা করেন। পুলিশ রাতেই মামলাটি রেকর্ড করেছে।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই রাকিব জানান, মঙ্গলবার রাতে মামলার পর থেকেই ছাত্রীকে পুলিশের হেফাজতে নেওয়া হয়। বুধবার সকালে পুলিশী হেফাজতে নাটোর আধুনিক হাসপাতালে নিয়ে তার ডাক্তারী পরীক্ষা সম্পন্ন হয়। পরে আদালতে ভিকটিমের ২২ ধারায় জবানবন্দী নেওয়া হয়।
বাগাতিপাড়া মডেল থানা অফিসার ইনচার্জ আব্দুল্লাহ আল মামুন মামলার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আসামী গ্রেপ্তারে বিভিন্ন স্থানে অভিযান অব্যাহত আছে।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published.