বণ্যপ্রাণি হত্যার দায়ে ইউপি সদস্যসহ ১১ জনের নামে অভিযোগ

নাটোর অফিস॥
নাটোরের বড়াইগ্রামে শিয়াল ও সাপ হত্যার অভিযোগে স্থাণীয় ইউপি সদস্যসহ ১১ জনের নামে থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগ, রাজশাহীর ওয়াইল্ডলাইফ রেঞ্জার মোহাম্মদ হেলিম রায়হান বাদী হয়ে অভিযোগটি দায়ের করেন। অভিযুক্তরা হলেন, বড়াইগ্রাম ইউপির ২ নম্বর ওয়ার্ড সদস্য উপজেলার ইকুড়ী গ্রামের আব্দুল তলফদারের ছেলে আব্দুল হামিদ, আশরাফ আলীর ছেলে জুবায়ের হোসেন, ইকুড়ীরাজাপুর গ্রামের খয়ের উদ্দিনের ছেলে কানু হোসেন, রায়হান আলীর ছেলে সবুজ হোসেন, রবিউল করিমের ছেলে রাতুল হোসেন ও আব্দুর রব এবং অপর ৫ জন অজ্ঞাত।
মোহাম্মদ হেলিম রায়হান তার অভিযোগে জানান, গত শুক্রবার দুপুরে ইউপি সদস্য আব্দুল হামিদসহ অভিযুক্তরা চারটি শিয়াল ও একটি দাড়াস সাপ লাঠি পেটা করে হত্যা করে উল্লাশ করেন। সেই ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হলে বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগের নজরে আসে। পরে মঙ্গলবার সরেজমি ঘটনাস্থল পরিদর্শনে এর সত্যতা মেলে। যা সম্পূর্ন অমানবিক ও বাংলাদেশ বন্যপ্রাণী (সংরক্ষণ ও নিরাপত্তা) আইন-২০১২ এর ধারা ৬(১) ও ৩৪(খ) মোতাবেক শাস্তিযোগ্য অপরাধ। শিয়াল ও সাপ পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। উক্ত বন্যপ্রাণী হত্যা করায় অভিযুক্ত ব্যক্তিগণ পরিবেশের আনুমানিক এক লক্ষ পঞ্চাশ হাজার টাকার ক্ষতি সাধন করেছেন ।
তিনি আরও বলেন, অভিযুক্ত আব্দুল হামিদ ইতিপূর্বে প্রায় ২০০ শামকখোল হত্যা করেন। সেবিষয়ে মুচলেকা দিয়ে ছাড়া পেয়েছিলেন।
বড়াইগ্রাম থানার অফিসার ইনচার্জ নজরুল ইসলাম অভিযোগ প্রাপ্তির বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, এ বিষয়ে তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Spread the love
  • 231
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    231
    Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *