বিনা বেতনে ২০ বছর চাকুরী করে মারা গেলন কলেজ শিক্ষক

নাটোর অফিস॥
নাটোরের বড়াইগ্রামে বিনা বেতনে ২০ বছর চাকুরী করে অবশেষে বুধবার রাত ১টায় ষ্ট্রোক করে নিজ বাড়িতে মারা গেলেন মুক্তার হোসেন (৫০) নামে এক কলেজ শিক্ষক। তিনি উপজেলার কালিকাপুর-বনপাড়া কৃষি ও কারিগরি কলেজের জেনারেল শাখার যুক্তিবিদ্যা বিষয়ের প্রভাষক হিসেনে ২০০১ সালে কর্মজীবন শুরু করেছিলেন। কলেজটির কারিগরি শাখা ২০০৪ সালে এমপিও ভুক্ত হলেও জেনারেল শাখা গত ২০ বছরেও এমপিও ভুক্ত হয়নি। মৃত্যু কালে তিনি স্ত্রী দুই মেয়েসহ অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে গেছেন। বৃহস্পতিবার সকাল ১১ টায় কালিকাপুর পূর্বপাড়া ঈদগাহ মাঠে জানাজা শেষে সামাজিক কবরস্থানে তাকে সমাহিত করা হয়। তার মৃত্যুতে স্থাণীয় সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুস, বনপাড়া পৌর মেয়র ও পৌর আওয়ামীলীগ সভাপতি কেএম জাকির হোসেন শোক প্রকাশ করেছেন।
কালিকাপুর-বনপাড়া কৃষি ও কারিগরি কলেজের অধ্যক্ষ আব্দুল আজিজ বলেন, মুক্তার হোসেন অত্যন্ত নিষ্ঠাবান শিক্ষক ছিলেন। কলেজের প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে তিনি স্বীয়দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন। বেতন না পেলেও তিনি কখনোই দায়িত্বে অবহেলা করতেন না। তাই জেনারেল শাখাটি দেখভালের জন্য তাকেই দায়িত্ব দেয়া হয়েছিল। অনেক চেষ্টার পরেও কলেজের জেনারেল শাখা এমপিও ভুক্ত করতে না পারায় অবশ্য তার মনে একটি কষ্ট বিদ্যমান ছিল। তার অকাল মৃত্যুতে কলেজের অপূরনীয় ক্ষতি হলো।

Spread the love
  • 1.5K
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    1.5K
    Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *