নাটোরের নলডাঙ্গায় গৃহবধূ হত্যা॥ স্বামী-শ্বাশুড়ী-ননদ আটক।

নাটোর: নাটোরের নলডাঙ্গা উপজেলার শাখাড়ীপাড়া এলাকায় মলেনা বেগম(৩০) নামের এক গৃহবধূ হত্যার ঘটনায় স্বামীসহ তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃতরা হল, মলেনার স্বামী গোলাম রাব্বানী(৩৩), শ্বাশুড়ী সামিউন বেগম (৪৭) ও ননদ পারুল বেগম (২৭)।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সাংসারিক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে মলেনার সাথে শ্বাশুড়ী সামিউন বেগমের প্রায়শই কথা কাটাকাটি হতো। এরই এক পর্যায়ে গত ১৯ শে জুলাই সন্ধ্যার পর শ্বাশুরীর সাথে কথা কাটাকাটির জেরে মলেনার উপর চড়াও হন শ্বাশুড়ী সামিউন বেগম ও ননদ পারুল বেগম। মলেনাকে তারা শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করে। রাতে ঘটনাটি স্বামী রাব্বানীকে জানালে মা ও বোনের কথায় প্রলুদ্ধ হয়ে সে মলেনার কানে জোরে চড় মারে। মলেনা অজ্ঞান হয়ে মাটিতে পড়ে গেলে তাকে উপর্যুপরি লাথি মারতে থাকে শ্বাশুড়ী ও ননদ। এরই এক পর্যায়ে মলেনা মারা গেলে বাড়ির একটি ঘরে মলেনাকে দড়িতে ঝুলিয়ে রাখে তারা তিনজন। পরদিন ২ শে জুলাই মানুষের কাছে প্রচার করে মলেনা আতœহত্যা করেছে। মেয়ের মৃত্যুর খবর শুনে কুষ্টিয়া থেকে পরিবারের লোকজন এসে মলেনাকে হত্যা করা হয়েছে মর্মে নলডাঙ্গা থানায় একটি এজাহার দায়ের করে। ওই রাতেই শাখারীপাড়ার বাড়ি থেকে মলেনার স্বামী, শ্বাশুড়ী ও ননদকে গ্রেফতার করে পুলিশ।
নলডাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ নুর হোসেন খন্দকার জানান, গ্রেফতারকৃত তিন জনকেই আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। হত্যাকান্ডের ঘটনায় আটককৃতরা স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। তদন্ত করে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published.