নাটোরে দুই লাখ ৬৩ হাজার ৮৮৯ শিশুকে ভিটামিন এ প্লাস ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে।

নাটোর: শিশুদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধির মাধ্যমে অপুষ্টিজনিত মৃত্যু ঝুঁকি কমানো এবং দেহের স্বাভাবিক বৃদ্ধির সহায়ক হিসাবে নাটোরে ভিটামিন “এ” প্লাস ক্যাম্পেইন অনুষ্ঠিত হবে আগামী ১৪ জুলাই। এই কর্মসূচি উপলক্ষে আজ বুধবার বিকেলে সিভিল সার্জন কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সাংবাদিক ওরিয়েন্টেশন কর্মশালায় দুই লাখ ৬৩ হাজার ৮৮৯ জন শিশুকে ক্যাপসুল খাওয়ানোর পরিকল্পনার কথা জানানো হয়।
কর্মসূচীর আওতায় জেলার মোট এক হাজার ৩৮৮টি কেন্দ্রের মাধ্যমে ৬ থেকে ১১ মাস বয়সী ২৭ হাজার ৭০১ জন শিশুকে একটি করে নীল রঙের এবং ১২ থেকে ৫৯ মাস বয়সী দুই লাখ ৩৬ হাজার ১৮৮ জন শিশুকে লাল রঙের ভিটামিন “এ” ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে। কর্মসূচীর সফল বাস্তবায়নে জেলায় সাতটি মনিটরিং টিমের তত্ত্বাবধানে ১৯৬ জন স্বাস্থ্য সহকারী, ১৮৪ জন কমিউনিটি হেলথ কেয়ার প্রোভাইডার, ৩০৫ জন পরিবার কল্যাণ সহকারী ছাড়াও দুই হাজার ১৫২ জন স্বেচ্ছাসেবক কাজ করবেন। নির্ধারিত কেন্দ্র ছাড়াও ভ্রমনরত শিশুদের নাটোরের ভৌগলিক এলাকায় আগমন ঘটলে বাস টার্মিনাল ও রেল স্টেশনগুলোতে ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে বলে কর্মশালায় জানান হয়।
কর্মশালায় নাটোর সদর হাসপাতালের সাবেক আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ আবুল কালাম আজাদ ও সিভিল সার্জন কার্যালয়ের মেডিকেল অফিসার নূর-এ-নাসরিন সেতু পাওয়ার পয়েন্টে ভিটামিন “এ”এর উৎস ও শরীরে এর প্রয়োজনীয়তা এবং ক্যাম্পেইন কার্যক্রম বাস্তবায়ন কৌশল বিষয়ে তথ্য উপস্থাপন করেন। সিভিল সার্জন ডাঃ আজিজুল ইসলাম কর্মশালা প্রধানের দায়িত্ব পালন করেন।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published.