নাটোরের দুটি চিনিকলে আখ মাড়াই শুরু

নাটোর: নাটোরের নর্থবেঙ্গল ও নাটোর চিনিকলে আজ থেকে চলতি ২০১৮-১৯ মৌসুমের আখ মাড়াই শুরু হয়েছে। এই দুটি চিনিকলে এবার চিনি উৎপাদনের লক্ষ্য ধরা হয়েছে ২৭ হাজার ৩০০ মেট্রিক টন। বিকেলে চিনিকলের ডোঙ্গায় আখ নিক্ষেপের মাধ্যমে মাড়াই মৌসুমের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয় বলে চিনিকল দু’টির কর্তৃপক্ষ জানান।
নর্থবেঙ্গল সুগার মিলের এমডি সারোয়ার হোসেন জানান, চলতি মৌসুমে নর্থ বেঙ্গল সুগার মিলে চলতি মৌসুমে ১৫ হাজার মেট্রিক টন চিনি উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। এজন্য আখের প্রয়োজন হবে ২ লাখ ৪৮ হাজার মেট্রিক টন আখ।
অপরদিকে নাটোর চিনিকলের এমডি মোহম্মদ শহিদুল্লাহ জানান, এবার নাটোর চিনিকলে চিনি উৎপাদনের লক্ষ্য নির্ধারণ করা হয়েছে ১২ হাজার ২৫৫ দশমিক ০৮ মেট্রিক টন। এজন্য আখের প্রয়োজন দেখানো হয়েছে ১ লাখ ৯৮ হাজার ৫৭০ মেট্রিকটন। চিনি আহরণের হার ধরা হয়েছে৭ দশমিক ৭৫ ভাগ। গত মৌসুমে চাহিদা অনুযায়ী আখ সরবরাহ না পাওয়ায় লক্ষ্যমাত্রা অর্জিত হয়নি।
চিনিকল দুটির কর্তৃপক্ষ বলেন নাটোরের প্রধান অর্থকরি ফসল হচ্ছে আখ। প্রতি মৌসুমে মিলে আখ সরবরাহ করে চাষীরা লাভবান হয়। আখের দামও বেশী পায়। কিন্তু নিষেধাজ্ঞা সত্বেও মাড়াই মৌসুমে মধ্যসত্বভোগীরা আখ মাড়াই করে গুড় তৈরি করায় মিলে চাহিদা অনুযায়ী আখ সরবরাহ পাওয়া যায়না। একারনে মৌসুমে চিনি উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা অর্জন ব্যহত হয়। এছাড়া মিলে উৎপাদিত চিনির বাজার মূল্য কম হওয়ায় মিলে উৎপাদিত চিনি বিক্রি না হওয়ায় ফি বছর লোকসান গুনতে হচ্ছে চিনিকলগুলোকে।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published.