নাটোরে নাসিমঃ ‘খুনীদের রাষ্ট্রক্ষমতায় আসতে দেয়া হবে না’

নাইমুুুর রহমান ও নবীউর রহমান পিপলু, বড়াইগ্রাম থেকে

২১ আগষ্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায়কে স্বাগত জানিয়ে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন ১৪ দলের সমন্বয়ক ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহম্মদ নাসিম বলেছেন, বিএনপি ভেবেছিল দেশের মাটিতে এতবড় রাজনৈতিক হত্যাকান্ডের বিচার হবেনা।আজ সেই বিচার হয়েছে। পাপ বাপকেও ছাড়েনা। বিএনপিকে হত্যাকারী দল আখ্যায়িত করে তিনি বলেন,ভবিষ্যতে খুনিদের ক্ষমতায় আসতে দেওয়া হবে না।’

বুধবার বিকেলে নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলার লক্ষিকোল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ১৪ দলের সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

নাসিম বলেন, ‘গ্রেনেড হামলা মামলার রায়ে জনগন সন্তুষ্ট। এই রায়ে আবার প্রমাণিত হয়েছে দেশে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। দীর্ঘদিন পরে হলেও খুনিদের বিচার হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জীবন বাজি রেখে উন্নয়নের ওয়াদা পূরণ করছেন। বিচাহীনতার সংস্কৃতি হতে ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠা করেছেন।’

আসন্ন নির্বাচনে বিএনপি অংশ না নিলে ভবিষ্যতে বিএনপিকে বাটি চালান দিওে খুঁজে পাওয়া যাবে না মন্তব্য করে নাসিম বলেন, বিএনপির তত্বাধায়ক সরকার এখন গোরস্থানে। তত্বাবধায়ক সরকারের দাবী এখন মূল্যহীন।’

স্বাস্থ্যমন্ত্রী নাসিম বলেন, ‘এখন উল্লাস করার সময় নয়। সামনে নির্বাচন। এই নির্বাচনের ফাইনাল খেলায় আওয়ামীলীগ জনগনের সমর্থন নিয়ে আবারও গোল দিবে। নির্বাচনের বিরুদ্ধে কোন আন্দোলন হতে দেওয়া হবে না। কেউ বিশৃংখলার চেষ্টা করলে সরকার বসে থাকবে না।

বিএনপিকে আগামী জাতীয় নির্বাচনে অংশগ্রহনের মাধ্যমে জনপ্রিয়তা যাচাই করার আমন্ত্রণ জানিয়ে ১৪ দলের এ শীর্ষনেতা বলেন, ‘সংবিধান অনুযায়ী শেখ হাসিনার অধীনেই আগামী জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ‘

বিএনপিসহ জাতীয় ঐক্যের সাথে সম্পৃক্ত দলগুলোকে উদ্দেশ্য করে আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মোহাম্মদ নাসিম বলেন, ‘চক্রান্ত বন্ধ করে নির্বাচনের জন্য প্রস্তুত হন। ফাইনাল খেলা হবে ডিসেম্বরে। এবার বিনা খেলায় গোল দিতে চাই না। গতবার নির্বাচনে না খেলে গোল দিতে হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গোল দিতে ভুল করেন না।’

দলীয় নেতা কর্মীদের উদ্যেশ্যে নাসিম বলেন, ‘এখন সময় গুরুত্বপুর্ন। ঘুম হারাম করে জনগনের কাছে যান। যারা অভিমান করে আছেন,তাদের অভিমান ভাঙ্গান।
ভোটের মত গুরুত্বপুর্ন সিদ্ধান্ত নিতে কেউ যেন ভুল না করেন।’

নাসিম আরও বলেন, গত ১০ বছরে জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের অভূতপূর্ব উন্নয়ন হয়েছে। অন্ধকার গ্রামগুলো আলোকিত হয়েছে। চলনবিলের বুক চিরে নির্মিত পাঁকা রাস্তা দিয়ে কৃষক তাঁর উৎপাদিত পণ্য বাজারজাত করতে পারছেন। তৈরী হয়েছে শিক্ষা ও স্বাস্থ্য প্রতিষ্ঠান। তাই দেশের উন্নয়নকে তরান্বিত করতে শেখ হাসিনার কোন বিকল্প নেই।’

বড়াইগ্রাম উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল জলিল প্রামাণিক সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন। এ সময় আরো বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক শিল্পমন্ত্রী দিলীপ বড়ুয়া, গণতন্ত্র পার্টির আহ্বায়ক ডা. শাহাদাত হোসেন, বাংলাদেশ গণ আজাদী লীগের সভাপতি এস.কে শিকদার, বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টির (ন্যাপ) সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসেন, কমিউনিস্ট পার্টির যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক ডা. অসিত বরণ রায়, বাসদ নেতা রেজাউর রশিদ খান রেজা,  নাটোর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুস এমপি ও সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম শিমুল এমপি, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী এ্যাডভোকেট জুনাইদ আহমেদ পলক এমপি, এ্যাডভোকেট আবুল কালাম এমপি, জাসদ নেতা এ কে এম রেজাউল করিম তানসেন এমপি প্রমুখ।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published.