পাওনা টাকা চাওয়ায় দোকান ভাংচুরের অভিযোগ

নাটোর অফিস॥
নাটোরের গুরুদাসপুরে দোকান বাকীর পাওনা টাকা চাওয়ায় দোকানপাট ভাংচুর ও মারধরের অভিযোগ উঠেছে প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে। বুধবার দুপুরে উপজেলার বিয়াঘাট ইউনিয়নের রাবারড্যাম এলাকায় ওই ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় গুরুত্বর আহত হয়ে গুরুদাসপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি রয়েছেন দোকান মালিক আক্কাছ আলী।
আক্কাছের ছেলে ওমর আলী ও আব্দুল আলিম জানান, রাবারড্যাম ব্রীজের পূর্ব পাড়ে তাদের মুদিখানা ও কাঁচামালের দোকান রয়েছে। সেই দোকানের পাওনা টাকা স্থাণীয় দুলাল হোসেনের ভাতিজাদের কাছে চাওয়া হয়। টাকা চাওয়ার অপরাধে দুলাল হোসেন, কামাল হোসেন, লোকমান হোসেনসহ ৬-৭ জন লোক তাদের দোকানে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করে এবং দোকানে থাকা নগদ টাকা ছিনিয়ে নিয়ে যায়। এছাড়াও তার বৃদ্ধ বাবা আক্কাছ আলীকে মারধর করে। এ ঘটনায় অভিযুক্তদের নামে গুরুদাসপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করবেন বলেও তিনি জানান।
তবে অভিযুক্ত দুলাল হোসেন এ বিষয়ে অভিযোগ অস্বিকার করে বলেন, ওমর আলী ও আব্দুল আলিম তারা মাদক ব্যবসায়ী। মুদিখানা ও কাচামালের দোকানের ব্যবসার আড়ালে মাদক ব্যবসা করে। মাদক বিক্রি নিষেধ করায় তারা উত্তেজিত হয়ে যায় এবং নিজেদের দোকান নিজেরাই ভাংচুর করে তাদের নামে অভিযোগ দিচ্ছেন। এই অভিযোগ সম্পুন্ন মিথ্যা।
গুরুদাসপুর থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল মতিন জানান, অভিযোগ পেলে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

Spread the love
  • 72
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    72
    Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published.