নাটোরের লালপুরে বন্দুকযুদ্ধে মাদক ব্যবসায়ী নিহত।

লালপুর: নাটোরের লালপুরে র‌্যাবের সাথে বন্দুক যুদ্ধে আহাদুল (৩৮) নামে এক ব্যাক্তি নিহত হয়েছে। এসময় দুই র‌্যাব সদস্য আহত হয়েছে। র‌্যাবের দাবী নিহত ব্যক্তি জেলার শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী। নিহত আহাদুল লালপুর উপজেলার কাজিপাড়া গ্রামের মোঃ মোমিনের ছেলে।
র‌্যাব-৫,রাজশাহী ,সিপিসি-২ নাটোর ক্যাম্পের কমান্ডার মেজর শিবলী মোস্তফা জানান, র‌্যাব-৫ এর একটি টহল দল সোমবার রাত ২টার দিকে নাটোরের লালপুর -বনপাড়া সড়কের গোপালপুর রেলগেট এলাকায় অবস্থান করছিল। এ সময় ২ জন একটি মোটর সাইকেলে করে বনপাড়ার দিকে যাচ্ছিল। তাদের গতিবিধি সন্দেহজনক হলে র‌্যাবও তাদের পিছু নেয়। মোটর সাইকেল আরোহীরা ধানাইদহ রাস্তার বিজয়পুরে আনসারকাটা মোড় এলাকায় একটি আখ খেতের পার্শে অপেক্ষারত দুই অজ্ঞাত ব্যাক্তির হাতে সাদা রংয়ের প্লাষ্টিক বস্তা হাত বদলের সময় র‌্যাব সেখানে উপস্থিত হয়। এসময় র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে মোটর সাইকেল আরোহী দুই ব্যক্তি মোটর সাইকেল নিয়ে পালিয়ে যায়। টহল দল র‌্যাব পরিচয় দিয়ে অপর দুইজনকে আত্মসমর্পনের জন্য বললে তারা আখ খেতের মধ্যে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এসময় র‌্যাব তাদের ধাওয়া করলে তারা র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গুলি বর্ষন করে। র‌্যাবও পাল্টা গুলি করে। এসময় উভয়পক্ষের মধ্যে আনুমানিক ৫ মিনিট গুলিবিনিময়ের পর ঘটনাস্থলে একজনকে আহত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখা যায় এবং দলের অপর সদস্যরা পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়। পরে ঘটনাস্থল থেকে আহত ব্যাক্তিকে উদ্ধার করে লালপুর উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষনা করেন। ঘটনাস্থল থেকে একটি ম্যাগজিন দুই রাউন্ড গুলি ভর্তি ১টি বিদেশী পিস্তল, ২ রাউন্ড গুলির খোসা,৫৭ বোতল ফেনসিডিল ও নগদ টাকা এবং ১টি মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়।
মেজর শিবলী মোস্তফা আরও বলেন, নিহত আহাদুলের বিরুদ্ধে লালপুর থানায় মাদক ও চোরাচালান সহ ৮টি মামলা রয়েছে। সে জেলার শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী। আহত ২ র‌্যাব সদস্যকে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published.