নাটোরে আশিকের খুনীদের কি খুঁজেই পাওয়া যাবে না? 

গুরুদাসপুরঃ নাটোরের গুরুদাসপুরে চাঞ্চল্যকর আশিক শেখ হত্যা মামলার নেই কোন অগ্রগতি। তাই দুই বছরেও কোনো আসামী গ্রেফতার হয়নি। তদন্ত সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তার দাবী, তারা বিভিন্ন থানায় হত্যা মামলার আসামীদের ছবি পাঠালেও কোন সাড়া পাওয়া যায়নি।

এ ঘটনায় সুষ্ঠু বিচার পাওয়া নিয়ে সন্দিহান নিহতের পরিবার। মামলার কোনো অগ্রগতি না থাকায় আশিক হত্যার বিচার হবে কিনা তা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেন তারা। আদৌ আসামীরা গ্রেফতার হবে কি না, এ নিয়ে উদ্বিগ্ন তারা।

হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেফতার ও বিচার দাবিতে মানববন্ধন করেছেন নিহত আশিকের শিক্ষক সহপাঠীসহ উপজেলার সর্বস্তরের জনসাধারণ।
রোববার দুপুরে গুরুদাসপুরের বিলচলন শহীদ সামসুজ্জোহা সরকারি কলেজ রোডে এ মানববন্ধন কর্মসূচী পালিত হয়। এ সময় আশিক শেখের তিন বছরের শিশুকন্যা নুছাইবা খাতুনও তার বাবাকে হত্যার বিচারের দাবীতে ওই মানববন্ধনে অংশ নেয়।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন গুরুদাসপুর উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মো. আলাল শেখ, নিহতের বাবা নজরুল শেখ, পৌর আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক রেজাউল করিম সবুজ, জামান সরকার, শহীদুল শেখ প্রমুখ।

বক্তারা ক্ষোভের সাথে বলেন, আশিক হত্যা মামলা সিআইডিতে হস্তান্তরের দুই বছরেও গ্রেফতার হয়নি কোনো আসামী। তারা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে জবাব চান, আশিকের খুনীদের কি খুঁজেই পাওয়া যাবে না?

জানা যায়, চাঁচকৈড় কাচারিপাড়া মহল্লার নজরুল শেখের ছেলে আশিক শেখের সাথে পাশের টলটলিপাড়া মহল্লার জালাল মন্ডলের ছেলে আশিকুর রহমান অলির (২৪) সঙ্গে পাওনা টাকা নিয়ে বিরোধ ছিল। ২০১৭ সালের ২০ আগস্ট রাত ১০টায় টাকা দেয়ার কথা বলে আশিককে বাড়িতে ডেকে নিয়ে অলি ও তার বাড়ির সদস্যরা কুপিয়ে হত্যা করে। ঘটনার পরদিন নিহত আশিকের বাবা নজরুল থানায় বাদী হয়ে অলি (২৪) সহ তার বাবা জালাল মন্ডল (৫২)মা আলেয়া (৪২) ও স্ত্রী রিয়ার (২০) বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করেন। হত্যার পর থেকেই বসতবাড়ি ফেলে পলাতক রয়েছে আসামীরা।

মামলাটির তদন্ত কর্মকর্তা সিআইডির উপ-পরিদর্শক জাহাঙ্গীর হোসেন জানান, সম্ভাব্য বিভিন্ন থানায় আসামীদের তথ্য ও ছবি পাঠানো আছে। আসামিদের দ্রুত গ্রেফতারের চেষ্টা চালানো হচ্ছে।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published.