লালপুরে বৃদ্ধের বিকৃত লালসায় তৃতীয় শ্রেণীর ছাত্রী গর্ভবতি!

প্রতিনিধি, লালপুর॥
নাটোরের লালপুরে সিদ্দিক আলী (৫৫) নামের এক বৃদ্ধের বিকৃত লালসার স্বীকার হয়েছে তৃতীয় শ্রেণীর এক ছাত্রী। তার ওই কু কর্মের কারনে ছাত্রীটি এখন গর্ভবতি। সিদ্দিক আলী উপজেলার বালিতিতা ইসলামপুর গ্রামের মৃত আবুল হোসেনের ছেলে। এ ঘটনায় ওই ছাত্রীর মা বাদী হয়ে লালপুরথানায় একটি মামলা দায়ের করেছে এবং আসামি সিদ্দিক আলীক গ্রেফতার করা হয়েছে।

মামলার বাদী ওই ছাত্রীর মা জানান, ‘আমরা গরিব মানুষ, সংসার চালানোর তাগিতে প্রতিদিন সকালে আমরা স্বামী-স্ত্রী দুজনেই বাড়ির বাইরে কাজে চলে যাই, ফিরে আসি সন্ধায়। বাড়িতে আমার তৃতীয় শ্রেনীতে পড়ুয়া মেয়েটি থাকে, স্কুলের সময় হলে স্কুলে যায় আবার ছুটি হলে বাড়ি আসে। বাড়িতে লোক না থাকার সুয়োগে ফুসলিয়ে এবং ভয় ভিতি দেখিয়ে তার সাথে যৌন সম্পর্ক করে বাড়ির পাশের ওই বৃদ্ধ লম্পট। এ ভাবে দিনের পর দিন এমন কর্ম করায় মেয়ে গর্ভবতি হয়ে পড়ে। তার শারিরিক পরিবর্তন আমাদের নজরে এলে মেয়েকে জিঙ্গাসাবাদ করলে ঘটনা প্রকাশ পায়। পরে তাকে থানায় নিয়ে গিয়ে মামলা করেছি।

লালপুর থানর ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম জুয়েলঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, এ বিষয়ে মঙ্গলবারলালপুর থানায় মামলা হয়েছে এবং রাতেই লম্পট সিদ্দিক আলী (৫৫) কে গ্রেফতার করা হয়েছে। বুধবার তাকেআদালতে প্রেরণ করা হয়েছে এবং ওই ছাত্রীর জবানবন্দী রেকর্ড করার জন্য তাকেও আদালতে হাজির করা হয়েছে।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published.