লালপুরে নৌকা ঘাটের আধিপত্য নিয়ে সংঘর্ষে ৮ জন আহত

নাটোর অফিস॥
নটোরের লালপুরে পদ্মা নদীর নৌকা ঘাটের আধিপত্য নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষে অন্তত ৮ জন আহত হয়েছে। এঘটনায় ৪ জনকে আটক করা হয়েছে। রোববার দুপুরে উপজেলার লালপুর কলোনী এলাকায় এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। আহতদের মধ্যে দুজনকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল এবং অন্য ৬ জনকে লালপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। আহতরা হলেন, দক্ষিণ লালপুর কলোনীর মৃত ইছার উদ্দিনের ছেলে আমিরুল ইসলাম আমবু (৩৫) ও শামীম (৩৮) এবং পান্নুর ছেলে বিপ্লব (৩৫)। অপর দিকে মতি পক্ষের দক্ষিণ লালপুর চরের লোকমানের ছেলে সেন্টু (৩৭), নুবসারের ছেলে বকুল (৪০), দক্ষিণ লালপুর কলোনীর সানেজ আলীর ছেলে খাইরুল (৪৫), মোজাফফর হোসেনের ছেলে রিফাত হোসেন (১৭) ও লোকমান খাঁর ছেলে ঝন্টু (৩৩)।
পুলিশ ও এলাকাবাসী সুত্রে জানা যায়, রোববার দুপুর দুইটার দিকে উপজেলার লালপুর কলোনী এলাকায় পদ্মা নদীর নৌকা ঘাটের আধিপত্য নিয়ে বিরোধ নিরসনের জন্য লালপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আবু বক্কর সিদ্দিক পলাশের কাছে দুই পক্ষ যায়। এ বিষয়ে কোন সমাধান না হওয়ায় চেয়ারম্যানের কাছে উভয়পক্ষ দু’দিন সময় চেয়ে ইউনিয়ন পরিষদ থেকে বের হয়ে আসে। তারা কলোনীর দিকে যাওয়ার সময় কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে দুই পক্ষের মধ্যে মারামারি বেধে যায়। এ সময় উভয় পক্ষের ৮ জন গুরুতর রক্তাক্ত জখম হয়। গুরুতর জখম আমিরুল ইসলাম ও বকুল নামে ২ জনকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়
লালপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহা. মোনোয়ারুজ্জামান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় কেউ থানায় অভিযোগ দায়ের করেননি। সংঘর্ষের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে চারজনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। পরবর্তীতে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Spread the love
  • 2
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    2
    Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published.