পুষ্টি ও নিরাপদ খাদ্যের জন্য কৃষিকে আধুনিকায়ন করা হবে- কৃষি মন্ত্রী

নাটোর অফিস ॥
কৃষি মন্ত্রী ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ড. মোঃ আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, পুষ্টি ও নিরাপদ জাতীয় খাদ্যের জন্য কৃষিকে আধুনিকায়ন করা হবে। কৃষি যেন কৃষকের জীবন ও জীবিকার উৎস হিসেবে কাজ করে সেদিক লক্ষ্য রেখে সরকার কৃষিকে আধুনিকায়ন করার মাধ্যমে বাণিজ্যিকিকরণ করতে চায়। বাণিজ্যিকিকরনের ক্ষেত্রে ঔষধি প্রজাতির বৃক্ষের মুল্য অনেক বেশী। এলোভেরাসহ উৎপাদিত অন্যান্য ভেষজ প্রজাতির বৃক্ষ প্রক্রিয়াজাতকরণ এবং বিপনন করতে পারলে কৃষক উপকৃত হবেন।

বৃহস্পতিবার সকালে কৃষি মন্ত্রী ড. মোঃ আব্দুর রাজ্জাক নাটোরের ভেষজ (ঔষধি) গ্রাম খোলাবাড়িয়া গ্রাম পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের ব্রিফিংয়ে এসব কথা বলেন। পরে তিনি আমিরগঞ্জ ঈদগাহ মাঠে ভেষজ গ্রামের কৃষকদের সাথে মতবিনিময় অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে কৃষি মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’র নেতৃত্বে দেশ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন করেছে। এখন আমরা উৎপাদিত খাদ্যকে পুষ্টিগুণে সমৃদ্ধ এবং নিরাপদ করার জন্যে কাজ করছি। সরকার কৃষিকে বাণিজ্যিকিকরণ করতে চায়। কৃষির উৎপাদন যেন কৃষকের শুধুমাত্র খাদ্য চাহিদা পূরণের সহায়ক না হয়। কৃষি যেন অর্থকরি ফসলে পরিণত হয়। কৃষি যেন তাদের জীবন ও জীবিকার উৎস হিসেবে কাজ করে। নাটোরের ঔষধি গ্রামে উৎপাদিত বিপুল পরিমাণ এলোভেরা অত্যন্ত সম্ভাবনাময়। ভেষজের যথেষ্ট চাষ এখানে হচ্ছে। আন্তর্জাতিক বাজারে এলোভেরার ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতির সংকট এখন কেটে গেছে। কৃষকদের স্বার্থে এজন্যে কৃষি মন্ত্রণালয় কার্যকর সকল পদক্ষেপ গ্রহণ করবে। ধান, শাকসব্জিসহ অন্যান্য ফসলের মত উৎপাদিত ঔষধি পণ্যের গবেষণা শুরুর ব্যাপারেও কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে। কৃষকের উৎপাদিত শাকসব্জি ও ফল সংরক্ষণে সম্প্রতি সরকার পাল্টিপল কোল্ড ষ্টোরেজ নির্মাণের পদক্ষেপ গ্রহন করেছে।

কৃষি মন্ত্রী আরো বলেন, ২০২৩ সালের জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে বিএনপিসহ বিভিন্ন ছোট ছোট রাজনৈতিক দল আন্দোলনের হুমকি দিচ্ছে। বিএনপি আন্দোলনের নামে অস্থিতিশীলতা সৃষ্টি করতে চায়, দেশকে পিছনে নিয়ে যেতে চায়। আর আওয়ামী লীগ বিএনপির আন্দোলন মোকাবেলা করে দেশকে আরো সামনের দিকে নিয়ে যেতে চায়। বর্তমান সরকার বৈধ ও সাংবিধানিক সরকার। এ সরকার ক্ষমতায় থাকাকালে সরকারের দায়িত্ব হলো সকল মানুষের জানমালের নিরাপত্তা দেয়া। কাজেই, আন্দোলন সংগ্রামের নামে সন্ত্রাস ও নৈরাজ্যমূলক কর্মকান্ড করতে দেয়া হবে না বিএনপিকে।
এর আগে কৃষি মন্ত্রী সদর উপজেলার ভেষজ গ্রামের খোলাবাড়িয়া মধ্যপাড়া গ্রামে আদর্শ কৃষক জয়নাল আবেদীনের সাড়ে পাঁচশ’ প্রজাতির ঔষধি বৃক্ষের মিউজিয়াম পরিদর্শন করেন।
জেলা প্রশাসক শামীম আহমেদের সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সংসদ সদস্য শফিকুল ইসলাম শিমুল, কৃষক লীগের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক উম্মে কুলসুম স্মৃতি এমপি, হুসনে আরা এমপি,শামীমা ইয়াসমীন এমপি, শফিকুল ইসলাম শিমুল,সংসদ সদস্য শহিদুল ইসলাম বকুল, সংসদ সদস্য রতœা আহমেদ, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের ডিজি বেনজির আলম, পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা, ধান গবেষণা ইন্সটিটিউটের ডিজি শাজাহান কবীর, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শরিফুল ইসলাম রমজান সহ কৃষি বিভাগের কর্মকর্তাবৃন্দ।

Spread the love
  • 40
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    40
    Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published.