স্কুল শিক্ষক লতিফা হেলেন হত্যায় দোষিদের গ্রেপ্তার দাবি

নাটোর অফিস॥
নাটোরের গুরুদাসপুরে স্কুল শিক্ষিকা লতিফা হেলেন হত্যাকান্ডে জড়িতদের গ্রেফতার ও শাস্তির দাবিতে মানবন্ধন করেছেন সহকর্মীসহ প্রাথমিকের শিক্ষকরা। বুধবার  উপজেলার গুরুদাসপুর শহীদ মিনার চত্বরে ওই মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়। শিক্ষকদের ওই মানববন্ধনে শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ নানা শ্রেণি পেশার শত শত মানুষ অংশ গ্রহণ করেন।
মানববন্ধনে গুরুদাসপুর প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি প্রধান শিক্ষক এমদাদুল হক অভিযোগ করে বলেন, দুইবছর অতিবাহিত হলেও এই হত্যাকা-ের তদন্ত শেষ হয়নি। মামলাটি বর্তমানে পিবিআইয়ের কাছে তদন্তাধীন। তবে মূল সন্দেহভাজন বাইজিদ ইসলাম সোহাগ (৩৫) এক উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তার আত্মীয় হওয়ায় তাকে তদন্তের বাইরে রাখা হয়েছে। এই মানববন্ধনের মাধ্যমে আমরা পলাতক আসামী আহসান ও মূল সন্দেহভাজন বাইজিদ ইসলাম সোহাগকে গ্রেপ্তারের দাবি জানাচ্ছি।
মানববন্ধনে নিহতের মা মামলার বাদি মনোয়ারা বেগম বলেন, আমরা সুষ্ঠু বিচারের আশায় দিন গুনছি। এভাবে আর করদিন গুনতে হবে ভেবে পাচ্ছি না।
নাটোর পিবিআই পুলিশের পরিদর্শক নাসির উদ্দিন জানান, মামলার উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে। তদন্তের স্বার্থে কিছু বলা যাচ্ছেনা। তদন্ত শেষে প্রকৃত ঘটনা প্রকাশ করা হবে।
উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের ২৩ জুলাই বৃষ্টি¯œাত রাতে লতিফাকে তার শয়ন ঘরের বাড়ান্দায় ধর্ষণের পর কুপিয়ে হত্যা করা হয়। পরে পাশের পুকুর থেকে বিবস্ত্র অবস্থায় লতিফার ক্ষতবিক্ষত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এসময় অভিযুক্ত সোহাগের টর্চ লাইট এবং মমিনুলের ব্যবহৃত গামছা পাওয়া যায় ঘটনাস্থল থেকে।

Spread the love
  • 4
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    4
    Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *