গুরুদাসপুরে দুই শিশু জমজ বোনের মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া

নাটোর অফিস ॥
৬ বছর বয়সী দুই জমজ বোন জান্নাতি ও ফেরদৌসী আর কখনও তার মা-বাবাকে জ্বালাতন করবেনা। খিদে পেলে খাবার চাইবেনা। দিনভর তারা দুই বোন বাড়ির চারিদিকে ছুটে বেড়িয়েছে। খিদে পেলেই মায়ের কাছে ছুটে এসেছে। ওদের দুই বোনকে নিয়ে বেশ আনন্দেই দিন কাটছিল রাজিবুল ইসলামের। কিন্তু বাড়ির পাশের ডোবা কেড়ে নিয়েছে তার সোনা মনিদের। বৃহস্পতিবার দুপুরে তারা দুই বোন বাড়ির পাশে ডোবার পানিতে ডুবে মারা যায়। নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলার এই মমার্ন্তিক বিয়াঘাট ইউনিয়নের দস্তানগর গ্রামে এই মমার্ন্তিক ঘটনা প্রতিবেশীরা কেউ মেনে নিতে পারছেননা। সন্তান হারানো বাবা-মাকে সান্তনা দিতে এসে চোখের পানি ফেলছেন প্রতিবেশীরা।
স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হক ঘটনার খবর পেয়ে তিনি ছুটে গিয়েছিলেন জমজ দুই শিশু কন্যার শোকাহত বাবা-মাকে। কিন্তু তাদের শিশু দুটির নিথর মুখ দেখে তিনি নিজেও চোখের পানি ধরে রাখতে পারেননি।
শোকাহত পরিবারের সদস্যরা জানান, ওরা দুই বোন প্রতিদিনের মত বাড়ির বাহিরে খেলছিল্। কিন্তু কখন তারা ডোবায় পড়ে যায় তা কেউ জানতে পারেনি। খোজাখুজি করে তাদের সেই ডোবার মধ্যে পাওয়া যায়। উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার শরিফুল ইসলাম তাদের দু বোনকে মৃত ঘোষনা করলে আর্তনাদ করে উঠেন স্বজনরা। এলাকার পরিবেশ ভারি হয়ে ওঠে। কয়েক মুহুর্ত স্তব্ধ হয়ে যায় বাতাস। উপস্থিত অনেকেই চোখের পানি সম্বরন করতে পারেননি। ওই পরিবারে এখন চলছে শোকের মাতম। ভারি হয়ে উঠেছে এলাকার বাতাস। দুই জমজ বোন জান্নাতি ও ফেরদৌসী এখন শুধুই স্মৃতি।

 

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *