নাটোরের ব্যবসায়ীদের আম কিনতে চাঁপাই না যাওয়ার পরামর্শ

নাটোর অফিস ॥
করোনার সংক্রমন হার বৃদ্ধি পাওয়ায় নাটোরের আম ব্যবসায়ীদের আম কিনতে চাঁপাইনবাবগঞ্জ না যাওয়ার পরামর্শ সহ অনুরোধ জানানো হয়েছে। জেলা ও পুলিশ প্রশাসনসহ স্বাস্থ্য বিভাগের পক্ষ থেকে এই অনুরোধ জানানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার জেলা করোনা নিয়ন্ত্রন ও প্রতিরোধ কমিটির এক বৈঠকে সকলকে স্বাস্থ্যবিধি মানা সহ আম ব্যবসায়ীদের চাঁপাই নবাবগঞ্জে না যেতে স্থানীয় ব্যবসায়ীদের সাথে যোগাযোগ করার সিদ্ধান্ত হয়। এই বৈঠকের পর স্থানীয় আম ব্যবসায়ীদের সাথে ফোনে যোগাযোগ করে আম কিনতে চাপাঁইনবাবগঞ্জ না যেতে অনুরোধ করা হয়। প্রয়োজনে ২/৩ জন সেখানে গিয়ে আম কিনে পরিবহনের মাধ্যমে তা পাঠানোর কথা বলা হয়। সেখানে যাতায়াত না করার পরামর্শ দেয়া হয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে। বৈঠকে নাটোরে করোনার সংক্রমন হার বৃদ্ধি পাওয়ায় উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়। জেলা প্রশাসক মোঃ শাহরিয়াজের সভাপতিত্বে এই বৈঠকে পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা,সিভিল সার্জন ডাঃ কাজী মিজানুর রহমান,পৌর মেয়র উমা চৌধুরী জলিসহ স্বাস্থ্য বিভাগের অন্যন্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
জেলা প্রশাসক মোঃ শাহরিয়াজ করোনা প্রতিরোধে সকলকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান জানিয়ে বলেন, সম্প্রতি চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলায় করোনায় সনাক্তের হার ৫০ শতাংশের ওপরে । বর্তমানে আমের মৌসুম শুরু হওয়ায় নাটোরের অনেক ব্যবসায়ী সেখানে আম কিনতে যাচ্ছেন। ফলে নাটোরেও এই হার বৃদ্ধি পাওয়ার শংকা রয়েছে। তাই আম ব্যবসায়ীদের সেখানে না যাওয়ার জন্য অনুরোধ করা হচ্ছে। এছাড়া সকলকে স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলার অনুরোধ করা হচ্ছে।
এদিকে নাটোরের সিভিল সার্জন ডাঃ কাজী মিজানুর রহমান বলেন, ইতিমধ্যে নাটোরেও সংক্রমনের হার বৃদ্ধি পেয়েছে। যারা আম কিনতে চাঁপাইনবাবগঞ্জ যাচ্ছেন তাদের আপাতত না যাওয়ার জন্য পরামর্শ দিয়ে স্বাস্থ্য বিধি বিশেষ করে মাস্ক পড়ার জন্য বলা হচ্ছে।
জেলা সিভিল সার্জন অফিস সুত্রে জানা যায়,গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে ৪৬ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। আক্রান্তদের মধ্যে ৪৪ জন নাটোর শহর এলাকায়। ২ জন বাগাতিপাড়া ও বড়াইগ্রাম উপজেলায়। গত বৃহস্পতিবার মাত্র ৯ জনের করোনা পজেটিভ আসে। শুক্রবার নাটোরের সনাক্তের হার ৪৬ শতাংশ। ইতিমধ্যে আবুল কাশেম (৪৫) নামে আক্রান্ত একজন রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালে শুক্রবার মারা গেছেন। মৃত আবুল কাশেমের বাড়ি নাটোর শহরের মোহনপুর এলাকায়।
নাটোর সিভিল সার্জন অফিসের সিনিয়র মেডিকেল টেকনোলজিষ্ট (ল্যাব) হাফিজার রহমান জানান, গত ২৪ ঘন্টায় নাটোরে ৪৬ জনের শরীরে করোনা পজেটিভ রেজাল্ট পাওয়া গেছে। গত ২৪ ঘন্টায় ১১০ জনের নমুনা পরীক্ষা করে করোনা পজেটিভ আসে ৪৬ জনের। এদের ৪৪ জন শহর এলাকায়। শহরের লালবাজার, কাপুড়িয়াপট্টি ,বড়গাছা ও পটুয়াপড়া এলাকায় আক্রান্তদের সংখ্যা বেশী। আক্রান্তের হার হিসেবে শহর এলাকায় সনাক্তের হার ৯০ শতাংশ।

Spread the love
  • 147
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    147
    Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *