নাটোরে চকলেটের লোভ দেখিয়ে ২শিশু ধর্ষণের দায়ে এক ব্যক্তির যাবজ্জীবনসহ লাখ টাকার অর্থদন্ড

নাটোর অফিস ॥
নাটোরের লালপুরে চকলেট খাওয়ানোর লোভ দেখিয়ে সুমাইয়া(০৬) ও রিতু (৬) নামে দুই শিশুকে ধর্ষনের দায়ে ইয়াকুব আলী (৩৬) নামে এক ব্যক্তিকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড ও এক লাখ টাকা অর্থ দন্ডাদেশ দিয়েছে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুন্যাল। আজ বুধবার দুপুরে আদালতের বিচারক মোহাম্মদ ইমদাদুল হক এই আদেশ দিয়েছেন। মামলার শুনানী শেষে বিচারক আসামীর উপস্থিতিতে আজ বুধবার এ রায় দিয়েছেন। রায় ঘোষনা শেষে দন্ডপ্রাপ্ত আসামীকে নাটোর জেলা কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।
আদালত সুত্রে জানা যায়,২০১৭ সালের ২৭ নভেম্বর সকালে লালপুর উপজেলার শ্রীরামগাড়ী এলাকায় শিশু সুমাইয়া ও তার চাচাতো বোন রিতু বাড়ির বাহিরে খেলা করছিল। এসময় ইয়াকুব আলী তাদের চকলেট খাওয়ানোর লোভ দেখিয়ে বাড়ীর পিছনে বাঁশ বাগানে ডেকে নিয়ে যায়। সেখানে তাদের দু’বোনকে ধর্ষন করে ইয়াকুব। পরে রক্তাক্ত অবস্থায় শিশু দুটি তাদের অভিভাবককে জানালে মুমুর্ষ অবস্থায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। স্বজনরা বিষয়টি স্থানিয় জনপ্রতিনিধিদের জানায়। কিন্তু বিচার না পাওয়ায় একই বছরের ৩১ডিসেম্বর লালপুর থানায় সুমাইয়ার মা বাদি হয়ে ইয়াকুবকে আসামী করে মামলা দায়ের করেন। পরে আসামী ইয়াকুব আলীর বিরুদ্ধে ২০১৮সালের ১৭ এপ্রিল চার্জ গঠন করা হয়।
মামলায় ১৪জন স্বাক্ষ্য শেষে বিচারক মোহাম্মাদ ইমদাদুল হক আসামী ইয়াকুব আলীকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড এবং এক লাখ টাকা জরিমানা করার আদশে দেন। সাজাপ্রাপ্ত ইয়াকুব আলী পাবনা জেলার ঈশ্বরদী থানার মাঝদীয়া মাদ্রসা পাড়া এলাকার এসকেন আলীর ছেলে।

Spread the love
  • 18
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    18
    Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *