ব্যাট হাতে পলক এমপি-কিপিংয়ে পাইলট

নাটোর অফিস॥
‘বিল দেখোতো চলন-আর গ্রাম দেখোতো কলম’। চলনবিলের ইতিহাসখ্যাত সেই কলম গ্রামের কলম উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে আজ শুক্রবার বিকেলে কিছু সময়ের জন্য হাজারো মানুষের চোখ ছিল মাঠের কোনের একপাশের ক্রিকেট পিচের দিকে। তখন ওই পিচে ক্রিকেট ব্যাট হাতে ব্যাটিংয়ের ঢংয়ে বলের অপেক্ষায় দাঁড়িয়ে ছিলেন এলাকার কৃতি সন্তান আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এমপি। তার পিছনে উইকেট কিপিংয়ের জন্য দাঁড়িয়ে এমপি পলককে আউট করার অপেক্ষায় ছিলেন এককালের দেশ সেরা উইকেট কিপার বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক খালেদ মাসুদ পাইলট। তাই সবার নজর সেই ক্রিকেট ম্যাচের দিকে। তবে দৃশ্যটি ছিল মাঠের মধ্যে প্র্যাকটিসের জন্য তৈরি নেট পিচে। ম্যাচটি ছিল ড্যামি,কিন্তু তবুও উপস্থিত দর্শকদের মধ্যে উত্তেজনার কমতি ছিলনা। একদিকে তাদের প্রিয় নেতা পলক এমপি এবং অপর প্রান্তে প্রিয় দেশসেরা সাবেক ক্রিকেটার পাইলট। আর যিনি বল করার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন তিনি ছিলেন স্থানীয় এক খেলোয়ার। উপস্থিত হাজারো দর্শকের সবচেয়ে বেশী নজর ছিল সাবেক জাতীয় ক্রিকেটার খালেদ মাসুদ পাইলটের দিকে। পাইলটকে দেখতেই তারা ভির করেছিলেন ওই স্কুল মাঠে। তবে খেলায় শেষ পর্যন্ত কোন হারজিত হয়নি। কলম ক্রিকেট একাডেমীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের জন্য এই ড্যামি ক্রিকেট ম্যাচের আয়োজন করা হয়। নাটোর শহর থেকে প্রায় ৫০ কিলোমিটার দুরে চলনবিলের প্রত্যন্ত গ্রাম কলমে ৫০ জনের একদল ক্ষুদে স্বপ্নবাজকে নিয়ে এই ক্রিকেট একাডেমির যাত্রা শুরু হয়। এসব ক্ষুদে ক্রিকেট স্বপ্নবাজদের উৎসাহ যোগাতে রাজশাহী থেকে কলম গ্রামে আসেন সাবেক এই জাতীয় ক্রিকেটার পাইলট। এদিন সাবেক জাতীয় ক্রিকেটার পাইলটকে সাথে নিয়ে ফিতা কেটে কলম ক্রিকেট একাডেমির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এমপি। কলম ক্রিকেট একাডেমির উদ্বোধনের পর ব্যাট হাতে প্রাকটিস পিচে যান আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এমপি। তার পিছনে কিপিংয়ে নামেন দেশ সেরা ক্রিকেটার জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক খালেদ মাসুদ পাইলট।
এই একাডেমির প্রধান প্রশিক্ষক বিকেএসপির সাবেক ক্রিকেটার তারিকুল ইসলাম জানান,প্রায় ২০০ জন আবেদন করেছিলেন। বাছাই করে ৫০ জন নেয়া হয়েছে।
একাডেমির সভাপতি কলম ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ শফিকুল কবির জানান, সবার সহযোগিতা পেলে এই একাডেমি থেকে ভালমানের খেলোয়ার তৈরী করা সম্ভব হবে।
খালেদ মাসুদ পাইলট বলেন, দেশের সেরা ক্রিকেটার মাশরাফি, সাকিব ও মোস্তাফিজদের কারনে তাদের গ্রাম পরিচিতি পেয়েছে। একদিন কলম ক্রিকেট একাডেমি ভালমানের খেলোয়ার তৈরী করে সারা দেশকে কলম গ্রামকে নতুন করে ক্রিকেট গ্রাম হিসেবে পরিচিত করবে। তিনি কলম ক্রিকেট একাডেমিকে যতুটুকু সম্ভব সহায়তা করবেন বলে জানান।
প্রতিমন্ত্রী পলক বলেন, এক সময় কলম গ্রামকে মানুষ কাঁসার গ্রাম হিসেবে জানতো। কলম ক্রিকেট একাডেমি ভালমানের ক্রিকেটার তৈরি করবে। এজন্য হয়ত একদিন এই কলম গ্রামকে ক্রিকেটের গ্রাম হিসেবে চিনবে দেশের মানুষ। কলম ক্রিকেট একাডেমির জন্য সম্ভব সহায়তা করবেন বলে প্রতিশ্রুতি দেন প্রতিমন্ত্রী।

Spread the love
  • 175
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    175
    Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *