সাবেক ফুটবলার সোহেল রেজার কল্যাণে শিশু ফয়সাল ফিরে পেয়েছে তার পরিবারকে


নাটোর অফিস॥
সাবেক জাতীয় ফুটবলার সোহেল রেজার কল্যাণে পথ হারানো ৭/৮ বছরের শিশু ফয়সাল খুজে পেয়েছে বাবা-মা সহ তার পরিবারকে। পথ হারানোর মাত্র কয়েক ঘন্টার মধ্যে সোহেল রেজার ব্যক্তিগত চেষ্টায় মাত্র ৪/৫ ঘন্টার মধ্যে শিশুর বাবার খোঁজ মেলে। শিশুটিকে উদ্ধারের পর সোহেল রেজা অনলাইন শিশু ফয়সাল ও তার মা-বাবার ছবি অনলাইন পোর্টাল জাগোনাটোর টুয়েন্টি ফোর ডট কম সম্পাদকের কাছে প্রেরন করে শিশুটির পরিবারের দৃষ্টি আকর্ষনের জন্য অনুরোধ করেন। একই সাথে তিনি সামাজিক গণমাধ্যমেও ঘটনা সহ ছবিগুলো প্রচারের অনুরোধ করেন। পথ হারানো শিশু ফয়সালের ঘটনার প্রতিবেদন সহ ওই ছবিগুলো জাগোনাটোর টুয়েন্টি ফোর ডট কম অনলাইন পত্রিকায় প্রকাশ সহ সামাজিক গণমাধ্যমে প্রচারিত হওয়ার পর ফয়সালের পরিবার জানতে পারেন। তারা জাগোনাটোর টুয়েন্টি ফোর ডট কম অনলাইন পত্রিকায় দেয়া ফোন নম্বরে সোহেল রেজার সাথে যোগাযোগ করে ফয়সালের অবস্থান জানতে পারেন। পরে দুপুর ২টার দিকে ফয়সালের বাবা শহরের তেবাড়িয়া উত্তরপাড়া এলাকার কাঠমিস্ত্রি মোহম্মদ রেজা তার ভাগিনা কালাচানকে সাথে নিয়ে সাবেক ফুটবলার সোহেল রেজার সাথে সাক্ষাত করেন। এসময় হারানো ছেলেকে খুজে পেয়ে বুকে জড়িয়ে ধরেন।
ফয়সালের বাবা মোহম্মদ রেজা জানান, ফয়সালের মা ফুলেনা বেগম একটি বেসরকারী প্রতিষ্ঠানে চাকরী করেন। আজ মঙ্গলবার সকালে ফয়সালকে সাথে নিয়ে প্রতিদিনের মত ভাত খেয়ে আমরা স্বামী-স্ত্রী কাজে বের হই। ছেলে ফয়সাল তার ছোট চাচীকে বলে সে তার নানি বাড়িতে যাওয়ার কথা বলে বাড়ি থেকে বের হয়। এর পর থেকে তাকে খুজে পাওয়া যাচ্ছিলনা। এর মধ্যে ফেস বুকে অনেকেই দেখে আমাকে জানায়। পরে সোলে রেজা ভাইয়ের ফোন নম্বরে কথা বলে ছেলে তার কাছে রয়েছে বলে নিশ্চিত হই। তিনি আরও জানান,গত কয়েকদিন ধরে তার ছেলে ফয়সালের আচরনে পাগলাটে ভাব লক্ষ্য করা হয়। বিষয়টি নজরে পড়ায় চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যাওযার সিদ্ধান্ত হয়। ছেলেকে পেয়ে তিনি খুবই খুশী। তিনি ফুটবলার সোহেল রেজার দীর্ঘায়ু কামনা করেন।
সোহেল রেজা বলেন,তিনি শিশুটিকে উদ্ধারের পর নিজের হেফাজতে রেখে তার পরিবারের দৃষ্টি আকর্ষনের জন্য গণমাধ্যমে প্রতিবেদন সহ ছবি প্রচার করেন। এছাড়া নানাভাবে ছেলেটির পরিবারের ঠিকানা খোজার চেষ্টা করেন। শিশুটিকে দ্রুত তার পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দিতে পেরে নিজেকেই বেশ ভাল লাগছে। জাগোনাটোরকে এজন্য ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

Spread the love
  • 80
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    80
    Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *