নাটোরে করোনায় চাকরি হারিয়ে হতাশ নারীর আত্নহত্যা

নাটোর অফিসঃ  নাটোরের বড়াইগ্রামের বনপাড়া বাহিমালী গ্রামের জেনি বেবী কস্তা (৪০) নামে একজন খৃস্টান নারী ফেসবুকে মৃত্যুর ষ্ট্যাটাস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। করোনার কারণে চাকরি হারিয়ে নিদারুণ হতাশায় ভুগছিলেন ওই নারী।

শনিবার দুপুর ২টার দিকে নিজ বাড়ির শোবার ঘরের দরজা ভেঙ্গে পুলিশ ওই নারীর ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার করেছে। সে ওই গ্রামে মৃত আব্রাহাম কস্তার মেয়ে।

মেয়েটির নিকট আত্নীয়রা জানান, গত ১৬ বছর আগে স্বামীর সাথে ছাড়াছাড়ি হয়ে গেলে জেনি বেবী কস্তা আর বিয়ে করেননি। তিনি ঢাকায় একটি প্রাইভেট কোম্পানীতে চাকরী করতো। করোনা পরিস্থিতির কারণে গত তিন মাস যাবৎ সে গ্রামের বাড়িতে অবস্থান করছিলো। বাড়িতে ফিরে সে হতাশায় ভুগছিলো এবং ফেসবুকে আত্মহত্যা করবে এমন ইঙ্গিত দিয়ে নানাবিধ পোস্ট দিয়ে আসছিলেন। সর্বশেষ শুক্রবার রাতে ফেসবুকে ২৬ টি নিজের ছবি পোস্ট দিয়ে স্টেটাস দেয় ‘আমি মরে গেলে তোরা এগুলো দেখিস’।

বনপাড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ তৌহিদুল ইসলাম জানান, ওড়না দিয়ে ঘরের ডাবের সাথে গলায় ফাঁস লাগিয়ে সে আত্নহত্যা করে। তার মৃতদেহ ময়না তদন্তের জন্য নাটোর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

Spread the love
  • 641
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    641
    Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *