নাটোরে স্ত্রীকে মেরে চুল কেটে দিলো স্বামী!

নিজস্ব প্রতিবেদক, বাগাতিপাড়া, নাটোর॥
নাটোরের বাগাতিপাড়া উপজেলার দয়ারামপুর ইউনিয়নের শেখ পাড়া গ্রামে নেশার টাকা না পেয়ে শারীরিক নির্যাতনের পর স্ত্রী সাবিনা বেগমের(২৭) মাথার চুল কেটে দিয়েছে হায়দার আলী(৩৮) নামের এক ব্যক্তি। সাবিনা বেগম সিরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজেলার নাগর সৈয়দপুর গ্রামের কৃষক ইসমাইল হোসেনের মেয়ে।

আজ বৃহস্পতিবার(৯ই জুলাই) বিকেলে সাবিনার মা সুফিয়া বেগম বাগাতিপাড়ায় এসে মেয়েকে উদ্ধার করে। গতকাল বুধবার(৮ই জুলাই) রাতে এ ঘটনাটি ঘটে।

বাগাতিপাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ নাজমুল হক জানান, পাঁচ বছর আগে স্বামী রিক্সাচালক হায়দার আলীর সাথে তার ঢাকায় বিয়ে হয়। বিয়ের পর তারা দুজনে ঢাকা থেকে নাটোরে ফিরে আসেন। বিয়ের পর থেকেই নেশার টাকা না পেলে হায়দার আলী সাবিনার ওপর নির্যাতন করতেন। গত বুধবার(৮ই জুলাই) বিকেলে আবারও হায়দার বাবার বাড়ি থেকে নেশার করার জন্য ছয় হাজার টাকা এনে দিতে বলেন সাবিনাকে। কিন্তু সাবিনা বেগম তাতে অস্বীকৃতি জানান। এ নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কথা কাটাকাটি শুরু হয়। এক পর্যায়ে সাবিনাকে তার স্বামী বেধড়ক পেটায় এবং এক পর্যায়ে চুল কেটে দেয়।

এ ব্যাপারে বক্তব্য জানতে চাইলে অভিযুক্ত হায়দার আলী সাংবাদিকদের উপর ক্ষুদ্ধ হয়ে বলেন, “আমি আমার বউকে মেরেছি, তাতে সাংবাদিকদের কি?”

বাগাতিপাড়া মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ নাজমুল হক বলেন, এ ঘটনায় অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Spread the love
  • 143
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    143
    Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *