গুরুদাসপুরে নৌকা ও বিদ্রোহী প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া

নাটোর অফিস ॥
নাটোরের গুরুদাসপুর পৌর আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক মো. আরিফুল ইসলাম বিপ্লবকে তাঁর দলীয় পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। দলের সিদ্ধান্ত অমান্য করে মেয়র পদে নির্বাচন অংশগ্রহণ করায় শুক্রবার রাতে তার বিরুদ্ধে এ সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হয়।
এদিকে শুক্রবার রাতে নৌকার প্রার্থী শাহনেওয়াজ ও বিদ্রোহী প্রার্থী আরিফুল ইসলাম বিপ্লব সমর্থকদের মধ্যে পাল্টাপাল্টি ধাওয়ার ঘটনা ঘটে । বিপ্লব জানান, সাগর নামের তার এক কর্মিকে মারধর ও তার মোটরসাইকেল ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেওয়া হয়েছে। তবে মেয়র শাহনেওয়াজ আলী এ ঘটনা অস্বীকার করে বলেন, বিপ্লবকে দল থেকে অব্যাহতি দেওয়ায় তিনি আমার দলের নেতাকর্মির বিরুদ্ধে বিষোদগার করে জলঘোলা করার চেষ্টা করছেন।
শনিবার দুপুরে বিষয়টি নিশ্চিত করে উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি এ্যাড. আনিসুর রহমান বলেন, অব্যাহতিপত্রটি দলের কেন্দ্রীয় কমিটিসহ সংশ্লিষ্ট দপ্তরে পাঠানো হয়েছে। দলীয় সূত্রে জানা যায়, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের গঠনতন্ত্রের ৪৭ ধারা (ঞ) উপধারার বিধান মোতাবেক গত ২৮ ডিসেম্বর তারিখে অনুষ্ঠিত উপজেলা আওয়ামীলীগের বিশেষ বর্ধিতসভার সিদ্ধান্ত মোতাবেক পৌর নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়ায় দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সিদ্ধান্ত এবং পৌর আওয়ামীলীগের কমিটির সুপারিশ অনুযায়ী গুরুদাসপুর পৌর আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদকের পদ থেকে তাকে অব্যাহতি দেওয়া হলো।
দলীয় সূত্রে জানা যায়, গুরুদাসপুর পৌরসভার নির্বাচনে উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান মেয়র মো. শাহনেওয়াজ আলী দলীয় মনোনয়ন পান। কিন্তু দলের সিদ্ধান্ত অমান্য করে আরিফুল ইসলাম বিপ্লব বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে নারিকেল গাছ প্রতিক নিয়ে নির্বাচন করছেন।
উপজেলা আ.লীগের সভাপতি তথ্যটি নিশ্চিত করে বলেন, বহিস্কারাদেশ ইতিমধ্যে দলের কেন্দ্রিয় কমিটির সভাপতি-সাধারন সম্পাদক, দলের কেন্দ্রিয় কমিটির (নাটোর জেলার দায়িত্বপ্রাপ্ত) সাংগঠনিক সম্পাদক জেলা আ.লীগের সভাপতি-সাধারন সম্পাদকসহ সংশ্লিষ্ট দপ্তরে পাঠানো হয়েছে।
বিদ্রোহী মেয়র প্রার্থী বিপ্লব জানান, ‘বহিস্কারাদেশ এখনো হাতে পাইনি, একারনে কোন মন্তব্য নেই। তবে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসাবে তিনি নির্বাচন করবেন বলে জানিয়েছেন।
গুরুদাসপুর থানার ওসি আব্দুর রাজ্জাক বলেন, আইনশৃংখলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে এলাকার বিভিন্ন স্থানে পুলিশি টহল জোরদার করা হয়েছে। বিবাদমান দু’গ্রুপের কেউ থানায় কোনো অভিযোগ দেয়নি।

 

 

Spread the love
  • 10
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    10
    Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *