এমপি রত্নাকে তারা চেনেন না, সালামও দেননা!

নাটোর অফিস ॥
নাটোর জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য রতœা আহমেদ সংগঠনের জেলা কমিটির কর্মী সভায় দেয়া বক্তৃতায় বলেছেন,বিএনপি-জামায়াত কর্মীদের রক্ত চক্ষু উপেক্ষো করে নাটোরে ঘরে ঘরে গিয়ে মহিলা আওয়ামীলীগের কর্মী তৈরি করেছেন এবং কমিটি গঠন করেছেন। সেসময় যাদের নিয়ে দলীয় কর্মকান্ডে অংশ নিয়েছেন পরবর্তীতে তাদের তিনি বিভিন্ন পদ দিয়েছিলেন। এখন তারা বড় নেতা হয়েছেন। সামনে এলেও তারা এখন আমাকে চেনেনা এবং সালাম দেননাও। এমনকি অনুষ্ঠানে তারা বসতেও দেননা। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাকে এমপি বানিয়েছেন বলেই তিনি নারীদের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নারীদের মর্যাদা দিয়েছেন এমন কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, নাটোরে নারী নেতৃবৃন্দ তেমন মর্যাদা পাচ্ছেননা। উপজেলা পর্যায়ে সংগঠনের পুরুষ নেতৃবৃন্দ যে মর্যাদা পাচ্ছেন ,সেক্ষেত্রে নারী নেত্রীরা কিছুই পাননা। রোববার নাটোর জেলা পরিষদের অনিমা চৌধুরী অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের কর্মী সভায় স্বাগম বক্তৃতায় রতœা আহমেদ এমপি এসব কথা বলেন। এই কর্মী সভায় মহিলা আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি ও সাধারন সম্পাদক সহ কেন্দ্রী কমিটির পায় ডজন খানেক নেত্রী এবং জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক সংসদ সদস্য শফিকুল ইসলাম শিমুল ,শহিদুল ইসলাম বকুল এমপি এবং বর্র্ষিয়ান নেতা জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সাজেদুর রহমান খান সহ স্থানীয় আওয়ামীলীগ,মহিলা আওয়ামীলীগ সহ বিভিন্ন সংগঠনের শীর্ষ পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ ও জনপ্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। এমপি রত্না আহমেদের দেওয়া এই বক্তব্যে অনেককেই বিস্মিত হন।
পরে অবশ্য কেন্দ্রিয় নেত্রী মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদিকা মাহমুদা বেগম কৃক তার বক্তৃতায় বলেন, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠা করার লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে হবে। প্রতিটি ঘরে মহিলা আওয়ামী লীগের কর্মী তৈরি করতে হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নারীদের মর্যাদা দিয়েছেন। তিনি নারীদের স্বাবলম্বী করতে রাষ্ট্রের সব ক্ষেত্রে তাদের যুক্ত করেছেন। যারা কাজ করবেন তারাই পদে থাকবেন। যারা পদ নিয়ে সভা-সমাবেশে আসবেন না তাদের মহিলা আ’ওয়ামী লীগে থাকার দরকার নেই। কর্মী সভায় নাটোর সদর ও নলডাঙ্গা উপজেলার দুঃস্থ ও অসহায় মহিলাদের মাঝে ১৬ টি সেলাই মেশিন ও ৬ জনের মাঝে আড়াই লাখ টাকার চেক বিতরণ করা হয়। এর আগে কর্মী সভার উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা সাফিয়া খাতুন।
জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক বিউটি পারভিনের সঞ্চালনায় কর্মী সভায় অন্যান্যের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন, পৌর মেয়র উমা চৌধুরী জলি জেলা আওয়ামীলীগ সহসভাপতি সিরাজুল ইসলাম, সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শরিফুল ইসলাম রমজান, জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক সৈয়দ মের্ত্তুজা আলী বাবলু,জেলা আওয়ামীলীগ সাংগঠনিক সম্পাদক মালেক শেখ,নলডাঙ্গা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান আসাদ প্রমুখ।

Spread the love
  • 104
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    104
    Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *