নাটোরে হত্যা মামলায় একজনের যাবজ্জীবন!

প্রতিনিধি, সদর॥
নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলায় মোতালেব হোসেন নামে এক ব্যাক্তিকে গুলি করে হত্যার দায়ে মজনু মিয়া (৪০) নামে একজনকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিয়েছে আদালত। একই সঙ্গে অভিযোগ প্রমানিত না হওয়ায় দুইজনকে বেকসুর খালাস দেয়া হয়েছে। বুধবার দুপুরে জেলা ও দায়রা জজ মোঃ রেজাউল করিম আসামীর উপস্থিতিতে এ রায় দেন। সাজাপ্রাপ্ত মজনু মিয়া উপজেলার কুমরুল গ্রামের মোবারক হোসেন ওরফে কাচন প্রামানিকের ছেলে। খালাস প্রাপ্তরা হলেন, কুমরুল গ্রামের জাহাঙ্গীর হোসেন মন্ডলের স্ত্রী মর্জিনা বেগম (৩০) ও বাহিমালি গ্রামের মৃত আবেদ আলী মোল্লার ছেলে আবু রায়হান মোল্লা (৩৫)। আর নিহত মোতালেব একই উপজেলার বাহিমালি গ্রামের মৃত খয়মুদ্দিনের ছেলে।
নাটোর জজ কোর্টের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) সিরাজুল ইসলাম জানান, একটি নারী ঘটিত ঘটনাকে কেন্দ্র করে ২০১৫ সালের ৬ এপ্রিল রাত ১ টার দিকে বাহিমালি গ্রামের মোতালেব হোসেনকে তার বাড়িতে গিয়ে গুলি করে হত্যা করে মজনু মিয়া। এ ঘটনায় পরের দিন নিহতের স্ত্রী মঞ্জুয়ারা বেগম বাদি হয়ে তিনজনকে আসামী করে বড়াইগ্রাম থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলাটি প্রথমে বড়াইগ্রাম থানার পরিদর্শক এমরান হোসেন তদন্ত করেন। পরে সিআইডির পরিদর্শক আব্দুর রাজ্জাক খান মামলাটি তদন্ত শেষে ২০১৭ সালের ৩১ মার্চ তিনজনকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশীট দেন। ওই মামলাটির দীর্ঘ শুনানী ও সাক্ষ্য গ্রহন শেষে বিচারক এই রায় দেন।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published.